বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯ : প্রথম পর্ব

ভাললাগা বনাম ভালবাসা :
আমরা সচারচর আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ভাললাগার সাথে ভালবাসার রসায়ন ঘটিয়ে একটা তালগোল পাকিয়ে ফেলি। শুধু আমাদের দোষই বা দেই কিভাবে দেশ বিদেশের অনেক বরেণ্য ব্যাক্তিবর্গ একই কাজ করতে যেয়ে সংসার জীবনে বিপত্তি ডেকে এনেছেন। খেলাধুলার ক্ষেত্রেও ঠিক একই ধরণের ঘটনা ঘটে থাকে। বিশেষকরে, আমরা বাংলাদেশিরা অত্যন্ত আবেগপ্রবণ। ব্রাজিল/আর্জেন্টিনা-র সাপোর্ট করতে যেয়ে জীবন বিসর্জনের নজিরও আমাদের আছে। তাই চলমান বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে কিছু লিখতে যেয়ে সর্বাগ্রে ভাললাগা -ভালবাসাকে পূর্ণাঙ্গ ভাবে বিশ্লেষণ করার লোভ সামলাতে পারলামনা।

আমি এই লেখাটি যখন লিখছি ততক্ষনে থিসেরা পেরেরা-র শ্রীলংকা মাত্র ২৯.৫ ওভার খেলে ১৩৬ রানে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে ফেলেছে। অনেকটা একইভাবে গতকাল পাকিস্তান ভয়ঙ্করভাবে ধরাশয়ী হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে। উভয় খেত্রেই আমি কষ্ট পেয়েছি। আমার এই কষ্ট পাওয়া মানে এই নয় যে আমি শ্রীলংকার অথবা পাকিস্তানের সাপোর্টার। মানি লোক তিনি ডক্টর ইউনুস হোক অথবা শহীদ জননী জাহানারা ইমাম হোক এনাদের মান হানি জাতীয় কথা শুনলে একইভাবে আমি কষ্ট পাই । জয়সুরিয়ার সেই শ্রীলংকা অথবা ইমরান খান/ ওয়াসিম আকরাম/ ওয়াকার ইউনূসের সেই পাকিস্থানের এমন বিপর্যয়ে আমি বুনো আনন্দে আনন্দিত নই। আমি টিভির সামনে উদগ্রীব হয়ে বসে থাকি প্রতিযোগিতামুলুক টান- টান উত্তেজনাময় খেলা উপভোগ করার জন্য। সেটা যে দেশেরই হোক না কেনো।আমার স্পষ্ট মনে আছে একবার পাকিস্তান বাংলাদেশ খেলায় ইনজামাম/সায়ীদ আনোয়ার কে দিয়ে ওরা বল করিয়েছিলো। আমি সে অপমানে অপমানিত না হয়ে আশায় আশায় বুক বেঁধেছিলাম।

যা বলছিলাম, ভাললাগা ও ভালবাসা কিন্তু একই জিনিসনা এটা পুরাপুরি বিশ্বাস করতে হবে। আমি উমুক চিত্রনায়ক /চিত্র নায়িকা পছন্দ করি, কিন্তু ভালোবাসি ঘরের মানুষকে। আমি চাইনিজ খেতে পছন্দ করি কিন্তু ভালোবাসি ঘন ডাল দিয়ে মোটা চালের ভাত মেখে ঝাল আলু ভর্তা /কাঁঠালের বিচি ভর্তা অথবা সজনে, করলা দিয়ে ছোট মাছের চচ্চড়ি। আমি বেন স্টোকস-এর খেলা পছন্দ করি। সম্প্রতি ইংল্যান্ড -দক্ষিণ আফ্রিকার খেলায় বেন স্টোকসের সেই বিখ্যাত এক হাতের ক্যাচ ধরাকে আমি অনেক উপভোগ করেছি. আবার সেই বেন স্টোকস যখন বাংলাদেশেষে এসে খেলার মাঠে হ্যান্ড শেখ করতে চাইনি, আমি ওর এই কাজকে ধিক্কার জানিয়েছি. সাকিবের সেই বিখ্যাত সালুটকে উপভোগ করেছি। একটু পরে লড়াকু আফগানিস্তানের সাথে অস্ট্রেলিয়ার খেলা শুরু হবে। আমি অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি স্মিথ/ ওয়ার্নার ডেভিডের দল রশিদ /মুজিবদের গুগলি কিভাবে মোকাবেলা করে। এটার নাম হচ্ছে ভাল লাগা / পছন্দ করা । কিন্তু ভালবাসা সেতো সযত্নে জমা রেখেছি মাশরাফিদের জন্য। আমাদের এখানকার স্থানীয় সময় অনুযায়ী আগামীকাল ভোর সাড়ে পাঁচটায় শুরু হবে বাংলাদেশ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার খেলা। হয়তো ইংল্যান্ডের সাথে হেরে যাওয়া খ্যাপাটে হাসিম আমলা/রাবাদা দের দেশ প্রবল সাঁড়াশি আক্রমণ করবে আমাদের উপর। আমরাও জানি কিভাবে প্রতি আক্রমণের দাঁত ভাঙা জবাব দিতে। আর সেই খেলা দেখার জন্য ভোর তিনটায় শেহেরী খেয়ে হয়তো আর ঘুম হবেনা। আমার ছেলে হয়তো গালে লালসবুজের পতাকা একে সারা রাত বিছানায় ছটফট করবে । এরই নাম হচ্ছে ভালবাসা, যা সকল ভাল লাগার অনুভুতিগুলিকে একসাথে করে হৃদয়ের কুঠুরিতে বাস করে। আর সেই ভালোবাসায় উদ্বুদ্ধ হয়ে আগামীকাল একবারে ফজর নামাজ পড়ে বাপ্/বেটা টিভির সামনে বসে থাকবো । জয় পরাজয় খেলারই অংশ । যে কোনো ফলাফলের জন্যই প্রস্তুতুতি থাকবো । জয় হোক বাংলাদেশের। জয় হোক ক্রিকেটের. (চলবে)

1,255 total views, 2 views today

প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। পোষ্ট লেখক অথবা মন্তব্যকারীর অনুমতি না নিয়ে পোস্টের অথবা মন্তব্যের আংশিক বা পুরোটা কোন মিডিয়ায় পুনঃপ্রকাশ করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *