মিসিগান থেকে:-

ক’দিন ঝকঝকে তকতকে আকাশ দেখে মনে হলো যাক বাবা, এ যাত্রা বাঁচা গেলো। ওমা একি!! ঘুম থেকে উঠে দেখি আকাশের মুখ গোমরা, একি হলো!! ভাবতে ভাবতেই শুরু হলো তুষারপাত!! সারাদিনে ছয় ইঞ্চি পুরু করে তুষার জমিয়ে, আমার বৈকালিক হন্টনের শ্রাদ্ধ করে তবেই ক্ষেমা দিলো। স্বদেশে বৃষ্টির খবর পেলাম, বৃষ্টির মধ্যে শব্দ আছে, আবেগ আছে, ঝমঝম তালের ছন্দ আছে, গান, কবিতা, ছড়া এবং বৃষ্টিতে ভেজার আনন্দ আছে। আষাঢ়ের বৃষ্টি কদম ফোটায়। তুষারের শব্দ নেই,ছন্দ নেই, তুষার কদম ফোটায় না। পাতা ঝরা নেড়া গাছগুলো অসহায় দাঁড়িয়ে তুষারপাতের অত্যাচার সহ্য করে। তারপরেও তুষার নিয়ে পশ্চিমাদের গান আছে, কবিতা আছে।
কিন্তু আমার মতো পুরাতন বাঙালি বাবুর কাছে তা বড়ই খটমটে। আর তা হবেই বা না কেন? বুকের মধ্যে যে বাসা বেঁধে আছে, হৈমন্তী সুক্লা,,,,,,,

ওগো বৃষ্টি আমার চোখে পাতা ছুঁয়ো না,
আমার এতো সাধের কান্নার দাগ ধুয়ো না।
সে যেন এসে দেখে,
পথ চেয়ে তার কেমন করে কেঁদেছি।

১লা মার্চ ২০১৮ /Warren MI

4,207 total views, 1 views today

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে