__________________
অভিযোগ যেমন ছিলো তোমার, অভিযোগ ছিলো আমারও।তুমি ছিলে বাইরে আর আমি ছিলাম ভিতরে। তুমি সামলিয়েছ বিশাল জগৎ আর আমি সামলিয়েছি না হয় ছোট পরিসরে। । তুমি ও অভিমানের পাহাড় তুলেছ, রাগ দেখিয়েছ, অনুযোগ করেছ, নিজেকে গুটিয়েছ। —— আমিও সেই একই পথেই হেঁটেছি। কারন আমারও তো কষ্ট হয়েছে। রাতের আঁধারে যে একটা সময় হাতটি ধরে ঘুমুতে পারতে না,,,, সে-ই ই পাশ ফিরে থাকে মুখটি খুলে খেয়েছ কিনা জানতেও চায় না। —- রাতের আধাঁরে বৃষ্টির ভালোবাসায় উচ্ছল থাকলেও বিদ্যুৎ চমকানোয় যে দৌড়ে বুকের ভিতর আছড়ে পড়তো, আজ বিদ্যুৎ চমকাচ্ছে, মেঘের গর্জনে চারদিকে কাঁপন তুলছে তুমি আছো নিরব দর্শক হয়ে, জানতে চাইছো না একটিবারের তরেও,,,——– তপতী , তুমি কি ঠিক আছো? ভয় পাচ্ছো তুমি?বুকে জড়িয়ে নেবার প্রয়োজনটুকুও বুঝি আজ ফুরিয়ে গেছে। ——অভিযোগ কি শুধুই আমার ছিলো আগত্য ??? অভিযোগ কি তোমারও ছিলো না বলো ??? ——আমিও কি সামলাইনি এ জগৎ ? হোক না হয় পরিধি ছোট। তাই বলে কি কিছুই নয় ??? —– তুমি করেছ পরিশ্রম, আমিও কি করি নাই ? আমি কি তোমার পরিশ্রমের মর্যাদাটুকু দেই নাই ? ——— আমি কি শুধু ই অভিযোগ করেছি ? চেয়েছিলাম কি বলোতো,,,, —– চেয়েছি শুধু সময় তোমার,, ভালো থাকার, ভালো পরিবেশ, ভালো ভবিষ্যত…. তোমার কিছু হলে আমি কোথায় দাঁড়াবো, চেয়েছি ভবিষ্যতে এর স্থায়ী ঠিকানা। চেয়েছি সারা জীবনের ভালো থাকার নিশ্চয়তা। আর চেয়েছি তোমার সঙ্গ। হুম তোমার সঙ্গ। চেয়েছি দূর পাহাড়ে হারিয়ে যেতে, দূরে দূরে নতুনভাবে আবিষ্কার করতে।
—– এটাই আমার অপরাধ তাই না আগত্য ?
—— তুমিতো পাখির মত উড়তে চাইতে, আর আমিও সেই পাখির মত উড়ে ডানা ঝাপটাতাম। কোথায় কোথায় কতই না ছুটে চলা ছিলো আগত্য…..
——– অভিযোগ টাই কি বড্ড গুরুতর হয়ে দাঁড়ালো। অভিমান তো আমারও হয় বলো। আমিও তো পারি অভিমান করতে,,, আমারও যে আজ ইচ্ছে গুলোকে পা দিয়ে ডলে পিশে মেরে ফেলতে হচ্ছে। দিনের পর দিন একটা একটা করে হত্যা করছি।

—– আমি আজ খুনি। ইচ্ছেয় হোক, অনিচ্ছায় হোক, আমিও আজ খুনি …. নেশায় পরিনত একদিন হবেও জানি। খুন করাও মনের জোর লাগে গত্য। একজন খুনিকে সবাই খুনি বলে। কিন্তু তার পিছনে ও কোন না কোন গল্প থাকে। গল্পের একপাশ হয়ত জানি আমরা, কিন্তু অপর পাশকে খুঁজে দেখি না। গল্পটাও অজানায় অবহেলায় আলগোছে নৌকায় ভেসে যায়।
——– শুধু অভিমানের জন্য আজ এই খুনের সূত্র। আজ যদী প্রশ্রয় না দিতে, আমিও প্রশ্রয় দিতাম না। কি সাধ্য আমার / তোমার চোখে আমার সর্বনাশ যে আমি দেখেছিলাম।

——- রাগ তো সবারই থাকে। রক্তে মাংসে গড়া মানুষ। মানুষ তো। হিংস্র হায়েনা তো আর নয় যে কচি মাংসের লোভে তছনছ করে চোখের লকলকিয়ে আহার্য করতে হবে। ——– জামার গায়ের সেই তুমি তুমি গন্ধ টা নয় এবার উবে যাক। তার বদলে আসুক সাদা শার্টের ভিজোনো রক্তেমাখা ছোঁপ ….. ®

নীলিকা নীলাচল****

5,886 total views, 1 views today

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে