কানাডাতে বাংলাদেশিদের জন্য এক ভিন্নধর্মী মানসিক স্বাস্থ সেবা

মানসিক স্বাস্থ্য-সেবায় এই প্রথম কানাডাতে বাংলাদেশী কমুনিটির জন্য একটি ভিন্নধর্মী উদ্যোগ।

Created with Nokia Smart Cam

Created with Nokia Smart Cam

monosheba4bc@gmail.com

আপনি মানসিকভাবে দুর্বল অথবা depressed? এই বিভুঁই বিদেশে আপনি একা নন।

আপনার যদি মনে হয় জীবন আপনাকে ঝুলিয়ে রেখেছে, নিজেকে খুব একা এবং অসহায় মনে হয়, বিষন্নতা আছন্ন করে থাকে সারাক্ষন, কোনো কাজে উৎসাহ পান না, নিজের প্রতি কোনো কনফিডেন্স পাননা, জীবনকে দুর্বিসহ মনে হয়, মনে হয় জীবনে কিচ্ছু হবে না, জীবনের মানে খুঁজে পাস্ছেন না, কি করবেন বুঝতে পারছেন না, কাউকে খুলে বলতে পারছেন না, খাওয়া দাওয়া বা ঘুম ঠিক মতো হস্ছে না, এবং জীবনে বেঁচে থাকার কোনো মানে খুঁজে পাস্ছেন না, সব ছেড়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নেওয়ার কথা ভাবছেন তাহলে অবশ্যই আপনি উপরক্ত ইমেইলে ( monosheba4bc@gmail.com) অতি সত্তর যোগাযোগ করুন। এটি আমাদের বাংলাদেশী কানাডিয়ান কিছু নিবেদিত প্রাণ মানসিক স্বাস্থ কর্মীদের বিনামূল্যে একটি মহতী উদ্যোগ এবং গোপনীয়তার ১০০% নিশ্চয়তা।

শুধু মাত্র আপনি নিজে নয়, আপনার কোনো প্রিয়জন যদি কোনো ধরণের মানসিক সমস্যায় ভোগে, কিন্তু কোনো কারণে চিকিৎসকের শরণাপর্ণ হতে পারছে না, বা এখানকার রিসোর্স সমন্ধে ভালো অবগত নন অথবা কমুনিটির লোকে জানলে কি হবে ইত্যাদি মনে হয়ে তাহলে অনুগ্রহপূর্বক তাদেরকে উক্ত ইমেইলে রেফার করুন। এখানকার একটি দক্ষ টিমের যেকোনো সদস্য অতি অল্প সময়ে আপনার সাথে যোগাযোগ করবেন এবং আপনার সমস্যা নিরসনের যথাযত চেষ্টা করবেন।  

এখন বলছি, এরা কারা বা কেন এরা বীণা মূল্যে নিজের খেয়ে পরের কাজ করতে চাচ্ছেন। না এরা কোনো এজেন্সির হয়ে কাজ করছেন না বা কোনো বেক্তিগত স্বার্থের জন্যও করছেন না। নাই এদের কোনো অফিস, নাই এদের কোনো ফান্ড। এদের যেটা আছে, সেটা হলো an alturistic mind অর্থাৎ কল্যাণময়ী একটি মন। এরা সবাই BCCB এবং এই ব্লগের সদস্য এবং কেউ কেউ নিয়মিত লেখক। আমি এদের প্রত্যেককেই বেক্তিগত ভাবে চিনি। এদের অনেকের সাথে পরিচয় এদের জব সার্চের পরামর্শের মাধ্যমে। আর সেই ক্ষত্রে এদেরকে জানার আমার একটি অপার সুযোগ হয় এবং এদের রেফারেন্স দেওয়ার সময় আমি এদের এমপ্লয়ারদেরকে ২০০% কনফিডেন্সের সাথে বলতে পেরেছি যে এদেরকে চাকরি দিলে তাদের regret করতে হবে না, এবং regret করার আগে উক্ত এমপ্লয়াররা আমাকে accountable করতে পারেন। এখন বুঝুন কতখানি ভরসা থাকলে আমি এই ভাবে উনাদের পারফর্মেন্স সমন্ধে আগাম বলতে পারি।  কারণ হলো তারা তাদের কর্মের মাধ্যমে আমাকে সেটা প্রমান করেছেন এবং আল্লাহর রহমতে বর্তমানে উনাদের কাজের মাধ্যমে সেটা প্রমান করে চলেছেন। এবং উনাদের সৎ এবং একনিষ্ঠ কাজের জন্য উনাদের ২/১জনের এজেন্সিতে আমি আরো ২/১ জনকে রেফার করতে পেরেছি।

আপনারা যারা আমার ইতিপূর্বের লেখা পড়েছেন, তারা জানবেন আমি নিজে ভালো করে না দেখা বা না জানা বিষয় নিয়ে সাধারণত কথা বলি না। এদের প্রত্যেকের পরিচয় আমি পর্যায়ক্রমে দিবো। তার আগে যারা আমাকে চিনেন না তারা হয়তো ভাবতে পারেন ” তুই বেটা কে ? আগে সেটা বল ” . হা তাদের জন্য অতি সংক্ষেপে আমি আমার পরিচয় বলছি। আমি বলতে পারেন সমাজের একেবারে দুস্থ এবং vulnerable মানুষদের চাকর। সরকার আমাকে বেতন দেন ঠিকই,কিন্তু আমার আসল employer হসছে ওই সমস্ত দুস্থ এবং vulnerable মানুষ।  তারা আমাকে তাদের সাথে কাজ করার সুযোগ না দিলে আমি চাকরি করতে পারতাম না। তাছাড়া চাকরি যে করে তাকে তো চাকরই বলবেন তাই না। I love my job very much.

আমি বিগত প্রায় ১০ বছর ধরে Community Mental Health, Forensic Mental Health, Mental Health Justice and Prevention এবং Psychosocial Rehabilatition এর উপর কাজ করছি। আমি Finland থেকে Nordic Welfare Societyর উপর স্নাতক শেষ করে Social Work এর উপর দুই বছরের Phd পর্যায়ে গবেষণা করে সোশ্যাল ওয়ার্ক গবেষক হিসাবে কানাডাতে কানাডাতে আসি। এখানে কানাডিয়ান সোশ্যাল ওয়ার্ক প্র্যাক্টিসের উপর একটি পোস্টগ্রাডুয়েট সার্টিফিকেট কোর্স করি। বর্তমানে Minstry of Health and Long Term Care via LHIN ফান্ডেড একটি প্রতিষ্ঠানে কেস ম্যানেজার এবং স্টুডেন্ট plcement supervisor হিসাবে কর্মরত আছি। এর বাইরে আমি Ryerson Unoversityর Internationally Educated সোশ্যাল ওয়ার্কারদের জন্য একটি প্রোগ্রামে ভলান্টারি করি এবং BCCB র Job Support টিমের কন্সাল্ট্যান্টদের মধ্যে আমি একজন (না আমি এডমিনদের মধ্যে কেউ না)।

আমি এদেশে নিজেকে প্রতিষ্ঠার বেপারে অনেকের কাছ থেকে কম বেশি সাহায্য পেয়েছি তাই আমিও চেষ্টা করি আমার সামর্থের মধ্যে অন্যের জন্য কিছু করার। সেজন্য সাইফুল ভাই এবং তার টিম যখন আমাকে তাদের সাথে থাকার আমন্ত্রণ দিলেন তখন আমি সেটা আনন্দের সাথে গ্রহণ করলাম।  আমি আমার এক যুগেরও বেশি সময় কাজের অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি যে কাউকে কোনো সেবা দিতে গেলে নিজেও অনেক  কিছু শেখা যায় তাই এই সুযোগকে আমি উভয় পক্ষের জন্য সুযোগ বলে মনে করলাম, ইংরেজিতে যাকে  বলে WIN WIN Situation .

টিমের মধ্যে আছেন মিঃ সাইফুল আলম মিঃ মশিউল হাসান, মিসঃ অরুন্থিয়া উর্মি, মিঃ ওয়াদুদ মুকুল, মিসঃ সোমা দত্ত, মিঃ তৈয়বুর রহমান, মিঃ মাহাবুব আলম, মিসঃ শারমিন আক্তার, মিসঃ শার্লিন আক্তার, মিঃ মোস্তফা কামাল, মিসঃ কোহিনুর করিম।  

এদের প্রত্যেকেই কোনো না কোনো Mental Health Agency তে কাজ করছেন এবং অনেকেই বাংলাদেশে ও বিশ্বের অন্নান্ন দেশেও এই বিষয়ে কাজ করেছেন। বর্তমানে এদের কেউ কেউ যেমন এখানে CMHA, Fred Victor, LOFT, COTA Health, City of Toronto এবং Reconnect এ কাজ করছেন। এদের মধ্যে সাইফুল এবং হাসান ভাইকে আপনারা যারা BCCB বা parobashiblog পড়েন তারা জানবেন; বলতে গেলে তাদের নিয়মিত লেখার জন্য। অন্নান্ন সাইটেও এদের লেখা পাবেন। এদের মানসিক স্বাস্থ বিষয়ে যথাযত কাজের অভিজ্ঞতা, সংশিলিস্ট বিষয়ে বিভিন্ন ট্রেনিং এবং সোশ্যাল ওয়ার্ক বা সাইকোলজিতে উচ্চতরও ডিগ্রী আছে। অনেকেই সংশিলিস্ট বিষয়ের রেগুলেটরি বডিতে নিবন্ধনকৃত।

এই টিমের প্রধান উদ্যোক্তা মিঃ সাইফুল, যার সেবা আপনারা অনেকেই অলরেডি নেওয়া শুরু করেছেন। সাইফুলের সাথে আমার পরিচয় প্রায় বছর পাঁচেক আগে, উনারা যখন প্রথম এখানে আসেন। জাকারিয়া ভাই উনাদেরকে আমার কাছে রেফার করেছিলেন newcomer হিসাবে তাদের ক্যারিয়ার সমন্ধে কিছু পরামর্শের জন্য। এ বিষয়ে আমি আগে একটি লেখাতে বিস্তারিত লিখেছি। গত বছর তার লেখাপড়া শেষে একটি FT কাজ হয়। উনি যেখানে প্লেসমেন্ট করেছিলেন সেখানেই তার কাজ হয়। উনার HR রেফারেন্স নেওয়ার সময় আমাকে শেষ প্রশ্ন করেছিলেন ” তুমি কি তাকে hire কোরবা যদি কোনো সুযোগ থাকে ?” উত্তরে আমি বলেছিলাম অবশই, আর ইতিমধ্যে যদি কোনো সুযোগ থাকতো তাহলে তাকে তুমি ইন্টারভিউ নেওয়ারও সুযোগ পেতে না, he is such a good one. সাইফুল তার পড়াশুনা চলাকালীন সময়েই Ryerson University র একটি প্রজেক্ট এ Souhth Asian দের Mental Health awareness এর উপর অনেক কাজ করেছেন। অতএব তার এই কাজের শুরু অনেক আগের থেকেই। আমি আন্তরিকভাবে তাকে ধন্যবাদ জানাই তার এই উদ্যোগের জন্য। নিজের কাজ, জীবন এবং পরিবারের থেকে মূল্যবান সময় বের করে কমুনিটির জন্য কিছু করছেন এটা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে। তার সাথে পুরা টিমকে আমি আমার আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই এবং তাদের জন্য আমি গর্ব বোধ করি। আমাকে তাদের পাশে জাগা দেওয়ার জন্য আমিও গর্বিত।

stigma, discrimination, stereotype এবং মানসিক রোগে আক্রান্তদেরকে সমাজে লেবেলিং করার কারণে আমাদের কমিউনিটিতে মানুষ এই বিষয়ে প্রচন্ড বিপদে থাকা সত্ত্বেও কোনো সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন না।  অবশেষে দেওয়ালে যখন পিঠ থেকে যায় তখন কেউ কেউ হয়তো সাহায্যের জন্য কথা বলেন কিন্তু অধিকাংশ সময় সেটা অনেক দেরি হয়ে যায়, তখন করার আর তেমন কিছুই থাকে না। আবার কেউ কেউ আবার জিনিসটি প্রকাশই করেন না, এবং মাঝে মাঝে হারাতে হয় প্রিয় মানুষদের। আশা করি এই টিমটি শুধু মাত্র ভলান্টারি ভিত্তিতেই  সেবায় প্রদান করে যাবে না, সাথে সাথে আমাদের কমিউনিটি এবং কানাডিয়ান সমাজে  stigma, discrimination, stereotype ইত্যাদি বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং বিষয়গুলি নির্মূলের জন্যও কাজ  করে যাবে।

অন্নান্ন শাররীক সমস্যার মতো মানসিক সমস্যাও জীবনের একটি ক্ষুদ্র অংশ তাই এই ক্ষুদ্র অংশের কোনো ত্রূটির কারণে সারা জীবন বা সারা মানুষটি শেষ হয়ে যায় না, শেষ করে দেই আমরা আমাদের stigma, discrimination, stereotype এবং লেবেলিং এর মাধমে। আমার বিগত এক যুগের প্রাকটিসে আমি দেখেছি অনেক মানুষিই তাদের মানসিক সমস্যা থাকা সত্ত্বেও সেটা রিকোভার করে জীবনে অনেক উন্নতি করছেন এবং এমন এমন কাজ করছেন যা আমরা কোনো সমস্যাহীন মানুষও করতে পারি না, অথচ এদের কথা শুনলে বা এদের দেখলে ভুরু কুঁচকে ফেলি বা কোনো মন্তব্য করে ফেলি। sever Schizophenia থাকা সত্ত্বেও আমার এক ক্লায়েন্ট বেশ কয়েক বছর আগে উপযুক্ত ট্রিটমেন্ট এবং রিহ্যাবিলিটেশন এর মাধ্যমে mechanical বিষয়ে পড়াশুনা শেষ করে Bombardier তে প্রায় লক্ষাধিক ডলারে কাজ করছেন।  আবার severe OCD থাকা সত্ত্বেও আর এক ক্লায়েন্ট  উপযুক্ত ট্রিটমেন্ট এবং রিহ্যাবিলিটেশন এর মাধ্যমে মেডিকেল ল্যাব টেকনিসিয়ান কোর্স করে এখন একটি মেডিকেল রিসার্চ কেন্দ্রে কাজ করছেন।  এমনি ভুরি ভুরি উদাহরণ আছে। আর এই কারণেই আমি বিশ্বাস করি প্রিতিটি মানুষের জীবনে প্রস্ফফুটিতো হওয়ার যথাযত ট্যালেন্ট আছে, কিন্তু তাদের দরকার উপযুক্ত সাপোর্ট এবং সুযোগ। আর সেই সুযোগ আমাদেরকেই করে দিতে হবে, তাহলে ultimately আমরাই উপকৃত হবো।

এদেরকে করুণা নয়, বরং আপনার আমার মত একজন মানুষ হিসাবে সম্মান করুন। এরাতো আমাদেরই ভাই বোন। এদের প্রত্যেকের ভিতরে একটি সুন্দর মন লুকিয়ে আছে, সেটা প্রকাশের সুযোগ দিয়ে দেখুন আপনি ওদের অনেক কাছে চলে যেতে পারবেন এবং ওদের কাছে আসতে  পেরে আপনাকে সৌভাগ্যবান মনে হবে। মেডিকেশন এবং থেরাপি এদের সুস্থ হয়ে ওঠার ক্ষুদ্র একটি অংশ মাত্র। সব থেকে বড়ো জিনিসটি হলো আপনার আমার সহযোগিতা, তাদের কথা যত্নের সাথে শোনা, মানুষ হিসাবে তাদেরকে আট দশ জনের মতো মূল্য দেওয়া, তাদের Hope কে জাগিয়ে তুলতে সহায়তা করা, তাদের পাশে সময়মত দাঁড়ানো, তাদের কথা non -judgemental ভাবে শোনা, আপনাকে তাদের সমান মনে করা, তাদের সাথে বন্ধুসুলভ আচরণ করা এবং সর্বোপরি তাদের কন্ডিশন এর আগে তাদেরকে মানুষ হিসাবে গণ্য করা, অর্থাৎ Recognize the person before the condition. যেমন mentally ill মুকুল, আর মুকুল with mental illness কথা দুইটার মধ্যে অনেক অনেক তফাৎ আছে। প্রথমটিতে আপনি মুকুলকে নয় তার mental illnessকেই বেশি গুরুত্ব দিস্ছেন কিন্তু দ্বিতীয় বাক্যে আপনি মুকুলকে প্রথমে একজন মানসূহ হিসাবে গুরুত্ব দিস্ছেন তারপর তার অসুহস্থতার কথা বলছেন।

Stevie Wonder এর নিম্নলিখিত বিখ্যাত গানটি কে না শুনেছে। তাই Stevie Wonder নামটা শুনলে প্রথমেই অনেকের মনে তার গানের কথা এবং একজন বিখ্যাত গায়কের কথা মনে হয়, তার পর আসে তার অন্ধত্বের কথা অর্থ্যাৎ প্রথমে সে একজন গায়ক, তারপর আসে তার অন্ধত্বের কথা। আমার মনে হয় না কোনো ধর্মে বা কৃষ্টি কালচারে মানুষকে ছোট করে দেখার কোনো শিক্ষা আছে, তথাপি সমাজে যেটা আছে সেটা আমাদেরই সৃষ্টি তাই আমাদের সৃষ্টি আমাদেরকেই ধ্বংস করতে হবে। আমি বিশ্বাস করি এই টিম আপনাদের সবাইকে নিয়ে সেই কাজটি করে যাবে অনবরত।

আমাদেরকে শুরু করতে হবে আমাদের নিজেদের ঘর থেকে, আসুন তাহলে প্রথমত কিছু শব্দ বাদ দেয় যাক আমাদের ডিকশনারি থেকে, যেমন mad, retarded, hadnicap ইত্যাদি। আপনার আমার ফ্যামিলির কেউ যদি কোনো কারণে একটু isolate থাকে বা everyday life থেকে একটু withdrawn বলে মনে হয় তাহলে তার কাছ থেকে অত্তান্ত সম্মানের এবং যত্নের সাথে সম্ভব কারণগুলি জানার চেষ্টা করি।  আর নিজে যদি না পারি তাহলে সমাজে বিদ্যমান রিসার্সের সাহায্য নেই, তাও যদি না পারি তাহলে অন্তত এই টিমের ইমেইলে ( monosheba4bc@gmail.com ) নিজে বা প্রিয়জনের জন্য ছোট্ট একটি মেসেজ পাঠাই।  আমার দৃঢ় বিশ্বাস আমরা আপনাকে একটি উপযুক্ত পথ দেখাতে পারবো।

আপনি জানেন না আপনার আসলেই কি কোনো ক্লিনিকাল মানসিক সমস্যা আছে না, নাকি জাস্ট usual depression, sadness, frustration etc. যদি এরকম কিছু হয় তাহলে হয়তো এই টিমের কারো সাথে simply আলাপ করেই আপনার ভালো লাগতে পারে, আবার বিষয়টি ক্লিনিকাল হলে টিম যথাযত সাহায্য এবং উপযুক্ত জায়গায় আপনাকে রেফার করতে পারবে।

সব শেষে আপনাদের সবার সহযোগিতা কামনা করে এই টিমের কমিউনিটি সেবার ক্ষত্রে উন্নতি কামনা করে শেষ করছি। ভবিষতে এই লেখাটির একটি ইংরেজি ভার্সন লেখার ইসছা রাখছি যাতে করে আমাদের এখানে জন্মগ্রহণ করা তরুণ/তরুণীরা তাদের প্রয়জনে এই টিমের সাহায্য নিতে পারেন। সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন এবং সম্ভব হলে কিছুটা সময় প্রকৃতির সানিধ্যে কাটিয়ে আসুন।

বি. মুকুল

বিঃ দ্রঃ ভবিষ্যতে এই টিমের একটি ওয়েবসাইট করার ইসছা আছে, তাই কোনো স্বরিদয়বান ওয়েবডেভেলপার যদি কিছুটা ভলান্টারি সময় দিতে চান তাহলে উক্ত ইমেইলে জানান।

“I just called to say I love you

I just called to say how much I care

I just called to say I love you

And I mean it from the bottom of my heart”

Stevie Wonder

8,832 total views, 2 views today

প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। পোষ্ট লেখক অথবা মন্তব্যকারীর অনুমতি না নিয়ে পোস্টের অথবা মন্তব্যের আংশিক বা পুরোটা কোন মিডিয়ায় পুনঃপ্রকাশ করা যাবে না।

6 comments

  1. Soma Dutta

    অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনাকে। আপনার এধরণের উদ্যোগ, আমাদের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। ধন্যবাদ জানাই সাইফুল কে, তাঁর একনিষ্ঠ এই স্বপ্নের জন্য যার বাস্তব রূপ দিতে যাচ্ছি আমরা সকলে। খুব ভাল লাগছে, এই গ্রুপের একজন মেম্বার হিসেবে নিজেকে ভাবতে।

  2. সাইফুল আলম

    মুকুল ভাই, আপনাকে অনেক ধন্যবাদ সুন্দরভাবে বিষয়টি তুলে ধরার জন্য। আপনিই কিন্তু এর পথ প্রদর্শক। মানসিক সাস্থ্য নিয়ে কাজ করতে গিয়ে দেখছি, মানুষ আসলেই এটা নিয়ে ভাবে, না হলে এত মানুষ সাহায্য চাইবেই বা কেন?। আমি এর মধ্যে অন্তত ২০ জনের সাথে কথা হয়েছে, যারা সাহায্য এর জন্য বলেছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে ৫ জনের সাথে কথা বলছি। তবে সবচেয়ে খারাপ লাগে যখন দেখি কেউ তখনই সাহায্য চায়, যখন আর পারেনা। কিন্তু আগে সাহায্য নিলে হয়তো এত বড় ঝামেলার ভিতর দিয়ে যেতে হতনা। আমাদের অনেকেই মনে করে, মনসিক সাস্থ্য সমস্যা আমাদের হয়না, এটা সাদা লোকের সমস্যা। অনেকে মনে করে, আমি এটা বলি কারন আমি ফিল্ড এ কাজ করি। কিছুদিন আগে এক বাংলাদেশি আপা এই সম্পর্কে একটা ভিডিও প্রকাশ করেছে। আমি তো মনে করি উনি একটা দুঃসাহসিক কাজ করেছে। তার অর্থ হল, মানসিক সাস্থ্য আমাদের সবারই মানসিক সাস্থ্য সমস্যা হতে পারে, তার জন্য সাহায্য কামনা করা মানেই যে, আপনি পাগল (!) তা না। আপনি কিন্তু মানসিক ভাবে সুস্থ্য না হলে আপনার কর্মক্ষেত্রে, পরিবার, ও সমাজে বাঁধার মধ্যে পরবেন। তাই আসুন আমরা মানসিক সাস্থ্য সেবা নেই…আমরা নিজেরা ভালো থাকি, অপরকে ভালো থাকতে সাহায্য করি।

  3. Sharmin Akter

    Excellent write up …… to grow awareness on mental health outside of stereotypes among our community people as well as to introduce our mental health professionals team who will work with Bangladeshi community people for their mental health wellbeing on a voluntary basis. Proud to be part of this team and feel very lucky to have you as a great initiator of this team. Good Luck……

  4. Mahbub Alam

    Thanks a lot, dear Mukul Vi for your amazing write-up. I feel really fortunate to be a part of such a wonderful team, blessed with professionals having experience, expertise and most importantly, having big heart. My sincere thanks and heartfelt gratitude to all the team members for their dedication and firm determination to do something for our community despite their tons of business. I appreciate their noble initiative and compassion and do believe together we will be able to help our community get rid of mental health challenges and improve their quality of life. We would like to plead our community members to come forward so that we don’t have to go through the situation that FAHMIS’s parents are going through now. No, we don’t want any more premature demise because of stigma and lack of support. We must not say this team will solve every single mental health issue a community member may face; however, we want to assure s/he will not have to face the issue alone. May God bless us all.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *