সেই প্রতিহিংসার আগুনে জ্বলে পুড়ে মরে নিরীহ মানুষ আর মানবতা

এটা কোন বিখ্যাত শিল্পীর ভাস্কর্য নয়। এটা একটি লোহার বীম এর বিদ্ধস্ত অংশ। যে অংশের মাঝে লুকিয়ে আছে প্রায় তিন হাজার তরতাজা প্রাণের শেষ আর্তনাদ এবং তাদের স্বজনদের আমৃত্যু আহাজারি।
…..হ্যাঁ, এটি ৯/১১তে ধর্মের নামে ধ্বংস করা নিউইয়র্কের টুইন টাওয়ারের একটি অংশ।
আমেরিকার মিশিগান স্টেটের রাজধানী ল্যান্সিং এর ক্যাপিটাল হাউসের বিপরীত দিকের পার্কে এটি স্থাপন করা হয়েছে, ৯/১১তে নিহত মানুষদের স্বরণে। 
……. হিংসা প্রতিহিংসার জন্ম দেয়। সেই প্রতিহিংসার আগুনে জ্বলে পুড়ে মরে নিরীহ মানুষ আর মানবতা।
…..পাকিস্তান, আফগানিস্তান, কুয়েত,ইরাক, ইরান, সিরিয়া,জর্ডান,মুম্বাই, ঢাকা, মায়ানমার, ইয়েমেন,
এই তো সেদিন নিউজিল্যান্ড।
আপাতত সর্বশেষ অংক শ্রীলঙ্কা। 
তারপর????
—-
মসজিদ, মন্দির, গীর্জা, গুরুদুয়ারা, মঠ সহ সব উপাসনালয়ে প্রার্থনার সময় পুলিশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। 
…. পতিতার ঘরে খরিদ্দারের জন্য পুলিশি নিরাপত্তা লাগেনা।
বিধাতার ঘরে প্রার্থনারত মানুষের জন্য পুলিশি নিরাপত্তা আজ অপরিহার্য!!! 
বাহ্!!!
———–
(ল্যান্সিং, মিশিগান, উত্তর আমেরিকা)

8,200 total views, 171 views today

প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। পোষ্ট লেখক অথবা মন্তব্যকারীর অনুমতি না নিয়ে পোস্টের অথবা মন্তব্যের আংশিক বা পুরোটা কোন মিডিয়ায় পুনঃপ্রকাশ করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *