ব্যাঙ কাহিনী

সম্ভবত সময়টা ৭০ দশকের মাঝামাঝি, বাংলাদেশ নামক বদ্বীপ ব্যাপি সাজসাজ রব পড়ে গেলো। বিদেশে ব্যাঙ রফতানি হবে, টাকা আর টাকা। সেই টাকায় জীবন উন্নত হবে, রফতানি খাতে আয় বেড়ে দেশ উন্নত হবে। বদ্বীপের মানুষের ঘুম হারাম হয়ে গেলো, রাত নামলেই ব্যাঙ ধরা অভিযান। ব্যাঙ শিকারী, আড়ৎদার, মহাজন, প্রক্রিয়াকরণ, রফতানি সে এক মহা অর্থনৈতিক মেরাথন।
দুই বছরেই ব্যাঙ শূন্য বদ্বীপ। শুধু কিছু কুনোব্যাঙের ঘোরাঘুরি। 
……. ঠিক তিন বছরের মাথায় পোকার আক্রমণে কৃষকের মাথায় হাত। মশার প্রকোপে দেশ বাসী নিজেই নিজের গালে তাপ্পড় দিচ্ছে।
…… তার ছয়মাস পর বহুজাতিক কোম্পানির আগমন। দেশব্যাপী পোস্টার আর বিজ্ঞাপন , ” বোকার ফসল পোকায় খায়”।
.. “কীটনাশক ছিটাও ফসল বাঁচাও “।
সেই সাথে মশা তাড়ানো কয়েল, স্প্রে আর মশকনিধন বিষ এর জমজমাট ব্যবসা। 
…..যা চলবে কেয়ামত পর্যন্ত।
.. বহুজাতিক কোম্পানি কতো টাকার ব্যাঙ কিনেছিলো, আর কেয়ামত পর্যন্ত কতো টাকার কীটনাশক বিক্রি করবে।
সে হিসাব কখনো ট্রান্সফারেন্সী ইন্টারন্যাশনাল করে নাই, করবেও না। 
…… শোনা যাচ্ছে ডেঙ্গু এখন রাজধানী ছাপিয়ে জেলা উপজেলায় ধাবিত হচ্ছে,,
মেয়র মন্ত্রী নেতা অর্থনীতিবিদ বুদ্ধিজীবীদের বাণী শুনে মাইকেল মধুসূদনের কথা মনে পড়ছে…
… হে বঙ্গ, ভান্ডারে তব বিবিধ রতন!!!

2,520 total views, 9 views today

প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। পোষ্ট লেখক অথবা মন্তব্যকারীর অনুমতি না নিয়ে পোস্টের অথবা মন্তব্যের আংশিক বা পুরোটা কোন মিডিয়ায় পুনঃপ্রকাশ করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *