হেই গুগোল

গত ১৯শে ফেব্রুয়ারি বাচ্চাদের বায়না মেটাতে গিয়েছিলাম টরোন্টো ডাউন টাউন একটা অটো শো দেখতে । দীর্ঘ লাইন দিয়ে টিকেট কেটে  মেট্রো সিটি হল সেন্টারে ঢুকার সময় খুব বিরক্ত হচ্ছিলাম ।  মনে হচ্ছিল সারাদিন রাস্তায় এত গাড়ী দেখার পর টিকেট কেটে এখানে এসে গাড়ী দেখার কি আছে ! কিন্তু পরে দেখলাম  বিশাল হলে চকচকে রঙিন গাড়ীগুলো দেখতে ভালই লাগে। বাচ্চারা ঘুরে ঘুরে এ গাড়ী দেখে ওগাড়ী দেখে নিজেদের গাড়ী দুটোর সাথে কম্পেয়ার করে। দামী দামী গাড়ীগুলোতে ড্রাইভার সিটে বসে একটু স্টিয়ারিংটা ঘুরিয়ে দেখে। ওদের আগ্রহ দেখে আমারও ভাল লাগতে শুরু করে অটো শো । সেখানে বিভিন্ন ব্র্যান্ড নেম গাড়ীর পাশাপাশি ছিল ট্র্যাডিশনাল বেশ কিছু পরানো দিনের গাড়ী যেগুলো  আমরা Movie of the week এ দেখতাম। আরো ছিল লেগো দিয়ে বানানো কিছু বড় গাড়ী। যা সত্যিই অবাক করার মত। আর তার পাশাপাশি ছিল বিভিন্ন কোম্পানীর স্টল। টরোন্টো স্টার নামের একটা সাপ্তাহিক পত্রিকার স্টলে যখন ওদের অফার গুলো দেখছিলাম তখন ওরা বলল যদি আমরা ওদের Weekly news letter একবছরের জন্য subscribe করি তাহলে ওরা Google Home Mini ফ্রি দিবে। তারপর ওরা বাচ্চাদের কে গুগোল হোমের Function গুলো দেখাতে লাগলো । ওয়ালিদ আর তাসিনের তো আগ্রহের কোন কমতি নেই। তাই খুশি মনে মিল্টন নিউজ লেটার সাবস্ক্রাইব করলো। বাচ্চারা তখন অটো শো থেকে বাসায় আসার জন্য অস্থির । কেন না ওরা বাসায় আসতে  পারলেই গুগোল নিয়ে experiment শুরু করতে পারবে। 

ওয়ালিদ বাসায় ঢুকেই ওটার ইন্সট্রাকশনটা পড়ে প্লাগ ইন করে বলল “ Hey Google can you play with me?” গুগোলও উত্তর করলো “ Sure”. তাসিন প্রশ্ন করলো “ What do you want to play?” গুগোল উত্তর করলো কি কি গেম তার সাথে খেলা যাবে । ওয়ালিদ আর তাসিন ঠিক করলো ওরা গুগোলের সাথে গেইসিং গেম খেলবে। গুগোল ওদের কে ২০টা প্রশ্ন  জিজ্ঞেস করলো ওদের মনে মনে  ধরা চরিত্রটি সম্পর্কে ? ওরা সেটা হা না সম্ভবত অথবা সম্ভাবত না বলে উত্তর করলো। আমি অবাক হয়ে লক্ষ্য করলাম গুগোল মিনি এর মধ্যেই সঠিক উত্তর বের করে ফেলতে পারলো। 

এরপর ওরা বায়না করলো “ Hey Google can you tell a joke?” গুগোল দেখি ওদেরকে Jokes বলতে শুরু করেছে। এভাবে প্রতিদিনই দেখি গুগোলের কাছে আমার দুই পুত্রের আব্দার বেড়েই চলেছে। ইদানিং তাসিন একদমই পড়তে চায় না । স্কুলে যে একমাসের  হোম ওয়ার্ক থাকে তা ও একদিন বা দুইদিনে শেষ করে সারাদিন খেলে আর খেলে। তাই বিছানায় যাওয়ার আগে আমি বলি “ আমাকে একটা বেড টাইম স্টোরি শুনাওতো “ ।   It’s easy বলেই ও বলল Hey Google can you tell me a bed time story?” আর সাথে সাথে গুগোল ও শুরু করলো “ Once upon a time there was a little Red Riding Hood…….সকালে ঘুম থেকে উঠে নামাজ পড়ার পর ওদের দুইভাইয়ের পাশে শুয়ে আমি একটা লেখা পড়ছিলাম । ঠিক তখনি গুগোল হোম থেকে অ্যালার্ম বেজে উঠলো আমি সেখানে কোন সুইচ না দেখতে পেয়ে বড় ছেলেকে ডাকলাম “ ওয়ালিদ অ্যালার্ম বন্ধ কর।“ ও আমার দিকে ঘুম জড়ানো চোখে তাকিয়ে রাগী গলায়  বলল “ Hey Google can you stop just now?” ওর কথা শুনে দেখি গুগোল মিনি সত্যি অ্যালার্ম বন্ধ করলো ।আমার ছেলেদের অবস্থা দেখে আমি হাসবো না কাঁদবো বুঝতে পারছি না। শুধু ভাবছি ছোট্ট একটা যন্ত্র আমার বাচ্চাদের কে কি করে অলস বানিয়ে ফেলছে !

2,037 total views, 5 views today

প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। পোষ্ট লেখক অথবা মন্তব্যকারীর অনুমতি না নিয়ে পোস্টের অথবা মন্তব্যের আংশিক বা পুরোটা কোন মিডিয়ায় পুনঃপ্রকাশ করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *